বায়োডেটায় যে ভুলগুলো প্রায় সবাই করে থাকে

বায়োডেটায় যে ভুলগুলো প্রায় সবাই করে থাকে

একের পর এক চাকরির পরীক্ষা দিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু কিছুতেই ভাগ্যের শিকে ছিঁড়ছে না। আসলে ভেবে দেখেছেন কি গলদ থাকতে পারে গোড়াতেই? নিয়োগকর্তাদের কাছে আপনার পরিচয় বলতে আপনার পাঠানো বায়োডেটা। আর সেটাই যদি পছন্দ না হয়!! আপনি পেশাদার কিনা, তা বলে দেবে আপনার বায়োডেটা। কারণ আপনার যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা, দক্ষতা সবই বায়োডেটার মধ্যে দিয়েই প্রকাশ পায়। আর এই বায়োডেটা পছন্দ হলেই আপনার সামনে খুলে যায় ভালো কম্পানিতে চাকরির সুযোগ।

এখন বায়োডেটা বা সিভি বা রেজিউমে তৈরি করতে গিয়ে বেশকিছু ভুল প্রায় সবাই করেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক, সেসব ভুল এড়িয়ে কীভাবে তৈরি করবেন স্মার্ট বায়োডেটা?

১) একাধিক ই-মেইল ID থাকতে পারে, কিন্তু বায়োডেটায় কখনওই একাধিক ই-মেইল  ID দেবেন না।

২) কোনও বানান যেন ভুল না লেখা হয়।

৩) অভিজ্ঞতাকে হাইলাইট করতে গিয়ে অত্যঅধিক পরিমাণে বুলেট ব্যবহার করবেন না।

৪) কম শব্দে কম কথায় গুছিয়ে সিভি লিখুন।

৫) ETC, SAME AS ABOVE ভুলেও এসব লিখবেন না।

৬) ক্যাপিটাল লেটার রেজিউমে বানাবেন না।

৭) বায়োডেটায় দেওয়া সব তথ্য নিজে একবার যাচাই করে নেবেন।

৮) আপনি কম্পানির সেই নির্দিষ্ট পদের জন্য কী কারণে নিজেকে উপযুক্ত মনে করছেন, অল্পকথায় সেটা গুছিয়ে লিখুন।

সূত্র: জিনিউজ

It's only fair to share...Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

One thought on “বায়োডেটায় যে ভুলগুলো প্রায় সবাই করে থাকে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *